কানাডায় মুসলিম হত্যা; আদালতে বিচার শুরু

ছবিঃ সংগৃহীত

সম্প্রতি কানাডায় মুসলিম হত্যার দায়ে দেশটির আদালতে অভিযুক্তের বিচার শুরু হয়েছে। 

কানাডায় সম্প্রতি ট্রাক উঠিয়ে দিয়ে একটি মুসলিম পরিবারের চার সদস্যকে হত্যার ঘটনাকে সন্ত্রাসী হামলা বলে অভিহিত করেছেন দেশটির আদালত। গতকাল সোমবার (১৪ জুন) কানাডার অ্যাটর্নি জেনারেল অভিযুক্ত ২০ বছর বয়সী নাথানিয়াল ভেল্টম্যানের বিরুদ্ধে সন্ত্রাসি আইনে বিচার শুরুর পক্ষে রায় দিয়েছেন।

এদিকে, কানাডার পুলিশ জানায়, নাথানিয়াল পূর্বপরিকল্পিতভাবে এ ঘটনাটি ঘটিয়েছেন। পরিবারটি মুসলিম বলে ঘৃণা থেকে প্ররোচিত হয়ে এ হামলাটি চালানো হয়েছে।

উল্লেখ্য, গত ৬ জুন কানাডার অন্টারিওর লন্ডন শহরে একটি মুসলিম পরিবারের ওপর দিয়ে ট্রাক চালিয়ে দেয় নাথানিয়াল ভেল্টম্যান। পরে ওই পরিবারের ৫ সদস্যের মধ্যে ৪ জনই ঘটনাস্থলে নিহত হয়েছেন। নিহতদের মধ্যে দুইজন নারী। তবে দুর্ঘটনা থেকে ভাগ্যক্রমে বেঁচে গেছে ৯ বছর বয়সী এক শিশু। নিহত পরিবারের সদস্যরা পাকিস্তানি বংশোদ্ভূত।

এ ঘটনায় ইতিমধ্যে পুরো কানাডা জুড়ে ব্যাপক আলোচনা-সমালোচনার সৃষ্টি হয়েছে এবং দেশজুড়ে বিক্ষোভ হয়েছে। এদিকে, এ ঘটনায় কানাডার প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডো বলেন, কট্টর ডানপন্থী বর্ণবাদী গোষ্ঠীগুলোর বিরুদ্ধে লড়াই চালিয়ে যেতে হবে। কানাডা থেকে এ ধরনের কর্মকাণ্ড বন্ধ করতে হবে।

সোমবার আদালতে শুনানির সময় ২০ বছর বয়সী নাথানিয়াল ভেল্টম্যানেকে ভার্চুয়ালি হাজির করা হয়। আগামী ২১ জুন তাকে আবার আদালতে হাজির করা হবে। এর আগে ২০১৭ সালে কানাডা একই ধরনের ঘটনায় মারা গেছেন ৬ মুসলিম ব্যক্তি।

Leave a Comment

Your email address will not be published.