ক্রাইস্টচার্চের বর্বর হামলার আসামী ট্যারান্টের যাবজ্জীবন কারাদণ্ড

নিউজিল্যান্ডের ক্রাইস্টচার্চ শহরের দুটি মসজিদে হামলা চালিয়ে বাংলাদেশিসহ ৫১ জন মুসল্লিকে হত্যার ঘটনায় যাবজ্জীবন কারাদণ্ড হয়েছে আসামি ব্রেন্টন ট্যারান্টের। প্যারোলে মুক্তির কোনো সুযোগ নেই  তার ।খবর দ্য টেলিগ্রাফে

বৃহস্পতিবার দেশটির একটি আদালত তার যাবজ্জীবন কারাদণ্ডের আদেশ দেন। চলতি সপ্তাহে টানা চারদিন ধরে হামলায় বেঁচে যাওয়া ব্যক্তি ও ভুক্তভোগী পরিবারের কয়েক ডজন সদস্য আদালতের শুনানিতে অংশ নেন। তাদের সবাই হত্যাকারী ট্যারান্টের সর্বোচ্চ শাস্তি দাবি করেন।

২০১৯ সালের ১৫ মার্চ নিউজিল্যান্ডের ক্রাইস্টচার্চ শহরের আল নুর ও লিনউড মসজিদে জুমার নামাজের সময় হামলা চালান ব্রেন্টন। হামলার ঘটনা ফেসবুক লাইভে প্রচারও করেন।মুসল্লিদের মৃত্যু নিশ্চিত না হওয়া পর্যন্ত একের পর এক গুলি ছুড়তে থাকেন শ্বেতাঙ্গ  অস্ট্রেলীয় নাগরিক ট্যারান্ট।

এই ঘটনার সময় ওই দুটি মসজিদের খুব কাছেই ছিলেন নিউজিল্যান্ড সফররত বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের সদস্যরা।

৫১ জনকে হত্যার পাশাপাশি আরও ৪০ জনকে হত্যাচেষ্টা এবং সন্ত্রাসবাদের অভিযোগ ছিল ট্যারান্টের বিরুদ্ধে, যার সবগুলোই স্বীকার করেছেন তিনি।

৭ thoughts on “ক্রাইস্টচার্চের বর্বর হামলার আসামী ট্যারান্টের যাবজ্জীবন কারাদণ্ড”

  1. Pingback: gay dating games like hunipop

Leave a Comment

Your email address will not be published.