রায়হানের রিমান্ড কমানোর আবেদন খারিজ করলো মালয়েশিয়ার হাইকোর্ট!

রায়হান কবিরকে গ্রেফতারের ছবি

করোনার এই সময়ে মালয়েশিয়ায় অবস্থানরত প্রবাসী বাংলাদেশিদের দুরাবস্থা নিয়ে এক প্রতিবেদন প্রকাশ করেছিল আল জাজিরা। এই সংবাদমাধ্যমকে সাক্ষাৎকার দেওয়া বাংলাদেশি প্রবাসী কর্মী রায়হান কবিরের উপর থেকে বয়ে যাওয়া ঝড় যেন থামছেই না। গ্রেফতারের পর এবার রায়হানের রিমান্ডের মেয়াদ কমানোর আবেদন খারিজ করে দিয়েছে মালয়েশিয়ার হাইকোর্ট। মালয়েশিয়ার স্থানীয় সংবাদমাধ্যম সূত্রে এই তথ্য জানা গেছে। 

রায়হানের আইনজীবী সুমিথা শান্তিনি কিষণা রায়হানের রিমান্ডের মেয়াদ কমানোর আবেদন খারিজের বিষয়টি নিশ্চিত করেন।



রায়হানের আইনজীবী জানিয়েছেন,

অভিবাসন কর্তৃপক্ষের আবেদনে উল্লেখ করা জাতীয় অখণ্ডতার স্বার্থে হাইকোর্টে রিমান্ড বহাল রাখা হয়েছে।

তিনি আরও বলেন,

প্রথম দফার ১৪ দিনের রিমান্ড যথেষ্ট বলে আমাদের কাছে মনে হয়েছিল। তাই দ্বিতীয় দফা রিমান্ডের মেয়াদ কমানোর আবেদন আমরা করেছিলাম।

এর আগে দেশটির অভিবাসন কর্তৃপক্ষের মহাপরিচালক ইন্দিরা খায়রুল দায়মি দাউদ জানিয়েছিলেন,

আগামী ৩১ আগস্ট মালয়েশিয়া থেকে বাংলাদেশে ফ্লাইট আসবে। সেই ফ্লাইটেই রায়হান কবিরকে ফেরত পাঠানো হতে পারে।

প্রসঙ্গত, গত ৩ জুলাই আল জাজিরায় প্রচারিত ‘১০১ ইস্ট’ নামক ২৬ মিনিটের এক প্রতিবেদন প্রচারিত হয়। এতে করোনাভাইরাস মহামারিতে মালয়েশিয়ায় অবৈধ অভিবাসীদের সঙ্গে সরকারের আচরণ নিয়ে কথা বলেছিলেন রায়হান কবির। এই ঘটনায় দেশটির সরকার প্রবাসীদের তোলা এমন অভিযোগ সরাসরি অস্বীকার করে। পরবর্তীতে গত ২৪ জুলাই সন্ধ্যায় তাকে গ্রেফতার করা হয় এবং ২৫ জুলাই রায়হানকে ১৪ দিনের এবং পরে আবার নতুন করে ১৩ দিনের রিমান্ডে নেওয়া হয় তাকে।

 

৩ thoughts on “রায়হানের রিমান্ড কমানোর আবেদন খারিজ করলো মালয়েশিয়ার হাইকোর্ট!”

Leave a Comment

Your email address will not be published.