৮ মাসে বিদেশে গেছেন প্রায় ৬ লাখ বাংলাদেশি

সংগৃহীত ছবি

জনশক্তি কর্মসংস্থান ও প্রশিক্ষণ ব্যুরোর (বিএমইটি) তথ্যানুযায়ী গত ২০২১ সালের ১৫ জুলাই থেকে ১৪ মার্চ ২০২২ পর্যন্ত বিশ্বের ৮৭টি দেশে ৮ মাসে ৫ লাখ ৭৫ হাজার ৩৮২ জন কর্মী চাকরি নিয়ে বিদেশে গেছেন। এর মধ্যে সবচেয়ে বেশি গেছেন সৌদি আরবে ৩ লাখ ৯৬ হাজার ৯৪৯ জন। ওমানে গেছেন ৬৫ হাজার ১২৩ জন। সংযুক্ত আরব আমিরাতে গেছেন ৫৮ হাজার ৫৮৪ জন। সিঙ্গাপুরে গেছেন কাজ গেছেন ২৪ হাজার ৮৯১ জন। জর্ডান গেছেন ৯ হাজার ৩৭২ জন। কাতারে ৮ হাজার ৬৬২ জন। কুয়েতে ৩ হাজার ২৫২ জন। রোমানিয়ায় ১ হাজার ৪৪৬ জন।

এছাড়া মালটা গেছেন ৮৫১ জন। মরিশাস ৭৯৩ জন। ইতালি ৬৫৬ জন। কোরিয়া (দক্ষিণ) ৫৭৯ জন। আলবেনিয়া ৫৫৭ জন। গায়ানা ৪৩০ জন। সেশেলস ৪০৯ জন। ক্রোয়েশিয়া ৩৪০ জন। লেবানন ২২১ জন। কানাডা ২০৩ জন। সাইপ্রাস ১৯৭ জন। কঙ্গো ১৭১ জন। পোল্যান্ড ১৫০ জন। সোয়াজিল্যান্ড ১৪৩ জন। সার্ভিয়া ১৩৭ জন। যুক্তরাজ্য ১৩০ জন। কম্বোডিয়া ১২৬ জন। বলিভিয়া ১১৪ জন। আলজেরিয়া ৯২ জন। হাঙ্গেরি ৮৭ জন। সোমালিয়া ৭৮ জন। ইউক্রেন ৭৪ জন। মালয়েশিয়া ৪০ জন। আইভরি কোস্ট ৩৯ জন। শ্রীলঙ্কা ৩৯ জন। দক্ষিণ সুদান ৩২ জন। হংকং ৩২ জন। স্লোভেনিয়া ৩২ জন। ইথিওপিয়া ২৫ জন। পাপুয়া নিউগিনি ২৫ জন। চেক প্রজাতন্ত্র ২২ জন। মোজাম্বিক ২১ জন। নাইজেরিয়া ২১ জন। জার্মানি ২০ জন। নিরক্ষীয় গিনি ১৯ জন। সুইডেন ১৮ জন। বসনিয়া-হার্জেগোভিনা ১৭ জন। পাকিস্তান ১৬ জন। জিবুতি ১৪ জন। ব্রুনাই দারুসসালাম ১৩ জন। সুদান ১১ জন। পর্তুগাল ১১ জন। ইকুয়েডর ৯ জন।

এর বাইরে কিরগিজ প্রজাতন্ত্র ৯ জন। নেদারল্যান্ডস ৮ জন। অ্যাঙ্গোলা ৬ জন। মালদ্বীপ ৫ জন। বুরুন্ডি ৫ জন। নরওয়ে ৪ জন। বতসোয়ানা ৪ জন। থাইল্যান্ড ৪ জন। আয়ারল্যান্ড ৩ জন। ইরাক ৩ জন। ইয়েমেন ৩ জন। বাহরাইন ৩ জন। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র ২ জন। বেলিজ ২ জন। নিউজিল্যান্ড ২ জন। মাদাগাস্কার ২ জন। লিথুয়ানিয়া ২ জন। ঘানা ২ জন। তুরস্ক ২ জন। লিবিয়া ২ জন। গিনি ১ জন। রাশিয়ান ফেডারেশন ১ জন। আইসল্যান্ড ১ জন। বুলগেরিয়া ১ জন। বাহামা ১ জন। মেক্সিকো ১ জন। মরক্কো ১ জন। ফিনল্যান্ড ১ জন। কেম্যান দ্বীপপুঞ্জ ১ জন। ব্রাজিল ১ জন। কাজাকস্তান ১ জন। ডেনমার্ক ১ জন। কেনিয়া ১ জন। অস্ট্রেলিয়া ১ জন। ইন্দোনেশিয়া ১ জন। তুর্কমেনিস্তান ১ জন।

এ ব্যাপারে জনশক্তি কর্মসংস্থান ও প্রশিক্ষণ ব্যুরোর (বিএমইটি) মহাপরিচালক মো. শহীদুল আলম (এনডিসি) বলেন, করোনার কারণে জনশক্তি রপ্তানি খাত অনেক ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। তবে করোনাকালে সব সমস্যা কাটিয়ে ২০২১ সালের নভেম্বরে ১ লাখ ২ হাজার জন, ডিসেম্বরে ১ লাখ ৩১ হাজার জন, জানুয়ারিতে ১ লাখ ৯ হাজার জন ও ফেব্রুয়ারির আটাশ দিনে ৯২ হাজার জন কর্মী চাকরি নিয়ে বিদেশে গেছেন।

তিনি বলেন, বিদেশে রেকর্ড পরিমাণ কর্মী যাওয়ার কারণ আমরা সিস্টেমটিকে সহজ করে দিয়েছি। চাকরি নিয়ে বিদেশ যাওয়ার আগে ৩ দিন বাধ্যতামূলক যে কোর্স করতে হতো নিজ জেলায় গিয়ে, সেটি এখন আমরা উন্মুক্ত করে দিয়েছি। এখন যেকোনো জেলার মানুষ যেকোনো সরকারি প্রশিক্ষণ কেন্দ্রে গিয়ে সেই কোর্স সম্পন্ন করতে পারবেন। বিদেশ যাওয়ার ৩ মাস আগে এই কোর্স সম্পন্ন করতে হবে, এমন কোনো বাধ্যবাধকতা নেই। বিদেশ যাওয়ার আগে তিনদিনের কোর্স সম্পন্ন করলেই হবে।

Leave a Comment

Your email address will not be published.